কাতার : শ্রম আইনে সম্ভাবনা, খুলছে অনেকের ভাগ্যের দ্বার

ইকরাম হোছাইন, কুয়েত সিটি

কাতার, মাথাপিছু আয়ে এই মুহুর্তে পৃথিবীর সবচাইতে ধনীদেশ! স্বপ্নের মতো সাজানো এই দেশ, আভিজাত্য আর জৌলুস উপছে পড়ার মত! কাতারের মহামান্য আমীর শেইখ তামিমের জাদুর কাঠির ছোঁয়ায় পাল্টে গেছে কাতারের সবকিছুই …

পরিবর্ধনের ও পরিবর্তনের অংশ হিসাবে ছোঁয়া লেগেছে শ্রম আইনে ও! ফিফা ২০২২ আয়োজক দেশটির শ্রম পরিস্থিতি ও শ্রমিকের অধিকার নিয়ে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন গুলো সোচ্চার ছিল! এইবার মোক্ষম জবাব দিল কাতার!

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে নতুন শ্রমনীতি আইন সংস্কারের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। গত ৩০ আগস্ট মহামান্য আমীর এই ঘোষণা দেন …

এর আগে কাতারে শ্রমিকদের কেউ কোম্পানি পরিবর্তন করতে চাইলে নো অবজেকশন সার্টিফিকেট (এনওসি – Noc) বাধ্যতামূলক ছিল। কিন্তু এই আইন সংস্কারের কারনে এখন আর এনওসি’র প্রয়োজনীতা নেই। কাতারে এখন শ্রমিকরা নিজেদের পছন্দমতো চাকরি – পেশা পরিবর্তন করতে পারবেন। তবে কাতারের সরকারি গেজেট প্রকাশের ৬ মাস পর কার্যকর হবে এই নতুন আইন।

ফলে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের অভিবাসীদের মত বাংলাদেশিসহ সব অভিবাসী শ্রমিকদের অধিকার সুরক্ষার এক নতুন সম্ভাবনা দেখা দিচ্ছে । নয়া এ আইন সংস্কার কার্যক্রমের আওতায় ৭৭ এর পুরনো কাফালা (কফিল) পদ্ধতির অবসান ঘটবে।ফলে প্রতিষ্ঠিত হবে বৈষম্যহীন মজুরি ও শ্রম মর্যাদা।এতে উপকৃত হবেন আমাদের কাতার প্রবাসী বাংলাদেশিরা …

কাতারে বর্তমানে সাড়ে ৪ লাখের মত বাংলাদেশি কর্মরত আছে, এদের বেশিরভাগই নির্মানকাজে সম্পৃক্ত!

Related News

Add Comment