কুয়েতের ৫৮তম জাতীয় দিবস উদযাপন

কুয়েতের ৫৮তম জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশটিকে নানারূপে সাজানো হয়েছে। প্রতিবছরের মতো এবারও বিভিন্ন শহরে উৎসবমুখর পরিবেশে বিরাজ করছে।

এ উপলক্ষে ২৬ ফেব্রুয়ারি ২৮তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করেছে দেশটি। ১৯৬১ সালে ব্রিটিশদের কাছ থেকে মুক্ত হওয়ার পর দিনটিকে জাতীয় দিবস এবং ১৯৯১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ইরাকি আগ্রাসন থেকে মুক্ত হওয়ার দিনটিকে স্বাধীনতা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

এরপর থেকে প্রতি বছর ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি বিভিন্ন আয়োজনের মাধ্যমে যথাক্রমে জাতীয় ও স্বাধীনতা দিবস পালন করা হয়।

দিবসটি উপলক্ষে দেশটির গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও সরকারি-বেসকারি ভবন, সড়ক, পার্ক, শপিংমল, বাসা-বাড়িসহ সব জায়গায় লাল-সবুজ-সাদা ও কালো জাতীয় পতাকার রঙে আলোক সজ্জায় সজ্জিত করা হয়।

এ ছাড়া বিভিন্ন অঞ্চলে দিবসটি উপলক্ষে আয়োজন করা হয় মেলা, বিভিন্ন নাচ, গান, অভিনয়, সার্কাস, জাদুসহ নানা ধরনের সাংস্কৃতিক প্রোগ্রামের। জাতীয় দিবস ও স্বাধীনতা দিবস ঘিরে কুয়েত সাজে নতুন রূপে।

ঈদের আনন্দের চেয়েও এই দিবসটিতে স্থানীয়রা বেশি আনন্দ করে করে থাকে। নারী-পুরুষ, আবাল-বৃদ্ধা, ছেলে-মেয়ে সবাই জাতীয় পতাকার রঙে পোশাক পরিধান করে। ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা পানির পিস্তল, পানি বোরতি বেলুন নিয়ে রাস্তা দুই পাশে দাঁড়িয়ে একে অন্যের দিকে ছুঁড়ে মারে।

স্থানীয়দের পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের অভিবাসীরা ও প্রবাসী বাংলাদেশিরা বন্ধু-বান্ধব, পরিবার-পরিজন নিয়ে ঘুরে বেড়ান এবং প্রিয়জনদের নিয়ে উপভোগ করেন কুয়েতের অপরূপ সৌন্দর্য।

লিখেছেনঃ
 সাদেক রিপন , কুয়েত প্রতিনিধি 

Related News

Add Comment