কুয়েতে ফাঁসির মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেওয়া হল আমেরিকান সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাকে !!!

আমেরিকা থেকে মাদকদ্রব্য দেশে আনার জন্য দোষী সাব্যস্ত মার্কিন সেনাবাহিনীর এরিক কে বিচারক আহমেদ আল-আজিলের সভাপতিত্বে ফৌজদারি আদালত, ক্যাসিনেশন আদালত ফাঁসি দিয়ে ফাঁসির রায় কার্যকর করার জন্য আপিল কোর্টের দেওয়া রায় বহাল রেখেছে।“ আলজারিদা ডেইলি রিপোর্ট।
মাদক পাচারকারীদের তদন্তের সাথে জড়িত “সিকিউরিটি অথরিটি” ২০১৮ সালের আগস্টে এরিককে গ্রেপ্তার করেছিল। তার কাছে একজন “সিকিউরিটি অথরিটি” এর ছদ্মবেশী এজেন্ট মাদকদ্রব্য কিনতে গিয়েছিল। তাকে হাতে নাতে ধরার পরে তারা তাকে তল্লাশি করে এবং তার সাথে নেশা জাতীয় পদার্থ পাওয়া যায়।

কুয়েতের সালমিয়া অঞ্চলে অবস্থিত তার বাসভবনটিতে অনুসন্ধান চালিয়ে হ্যাশিশ এবং কোকেন, সোনার বার এবং তিনটি রোলিক্স ঘড়ি পাওয়া যায়। এর পাশাপাশি ২ লক্ষ ৭০ হাজার কুয়েতি দিনার, ৪৯,০০০ পেসো (ফিলিপাইনের মুদ্রা) – এবং কিছু অন্যান্য মাদকদ্রব্য ও পাওয়া যায়।
পাবলিক প্রসিকিউশন, আইনিকভাবে নির্ধারিত শুল্ক পরিশোধ না করেই এরিককে মাদকদ্রব্য পাচারের উদ্দেশ্যে এবং অবৈধভাবে দেশে পণ্য বিক্রি করার অভিযোগও এনেছিল। তাঁর বিরুদ্ধে ৩০০,০০০ কুয়েতি দিনার-মানি লন্ডারিংয়েরও অভিযোগ আনা হয়েছিল, যা তিনি কুয়েত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ফিলিপাইনের বিভিন্ন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করেছিলেন।


শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, ফৌজদারী আপিলের রায় তার মৃত্যুদন্ডের আদেশ বহাল রাখে। এখন শুধু আমিরি দিওয়ানের কাছে প্রসিকিউশন থেকে অনুরোধ জমা দেওয়া ছাড়া আর অন্য কোনো পথ খোলা নেই।

Related News

Add Comment