কুয়েতে বিদেশীদের প্রবেশ নিষেধ, বন্ধ সকল ফ্লাইট !

ক’রোনা ভাইরাসের শঙ্কায় কুয়েতে আবারো বিদেশী নাগরিকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হলো। ২০ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) এই সংক্রান্ত ঘোষণা দেয় কুয়েত সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ। এতে বলা হয়, পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত বিদেশি কেউ দেশটিতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

কুয়েতে বিদেশীদের প্রবেশ নিষেধ, বন্ধ সকল ফ্লাইট

কুয়েতে বিদেশীদের প্রবেশ নিষেধ, বন্ধ সকল ফ্লাইট।বিশ্বজুড়ে চলমান ক’রোনা সংক্রমণের শঙ্কায় আবারও কুয়েতে বন্ধ হলো ফ্লাইট। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত বিদেশি কেউ দেশটিতে প্রবেশ করতে পারবেন না। ঠিক তেমনি যারা অবস্থান করছেন বর্তমানে তারাও ফিরতে পারবেন না নিজ দেশে।

কেবল কুয়েতি নাগরিকরা যাতায়াত করতে পারবেন অনায়াসে। ২০ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) রাতে নতুন করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে কুয়েত সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ।

এর আগে সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষ জানায়, রোববার থেকে বাংলাদেশসহ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা বিশ্বের ৩৫টি দেশের অভিবাসীরা সরাসরি কুয়েত প্রবেশ করতে পারবেন। লাগবে না তৃতীয় কোনো দেশে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন। এর মধ্যেই আবারও নতুন সিদ্ধান্ত নিল কর্তৃপক্ষ।

প্রবাসী বাংলাদেশিরা বলছেন, কুয়েক সরকার অচিরেই সীমান্ত খুলে না দিলে রেমিট্যান্সপ্রবাহ বাড়বে না।

এদিকে, বিশ্বজুড়ে ক’রোনা প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিভিন্ন টিকা আবিষ্কার হলেও এখনো স্বস্তিতে নেই বিশ্ববাসী। বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ২৪ লাখ ৭২ হাজার ছাড়িয়েছে। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছে ১১ কোটি ১৬ লাখ ৪৮ হাজারের বেশি মানুষ।

ওয়ার্ল্ডওমিটার তথ্যানুযায়ী, রবিবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১১ কোটি ১৬ লাখ ৪৮ হাজার ৫৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২৪ লাখ ৭২ হাজার ২৯৮ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮ কোটি ৬৮ লাখ ১৪ হাজার ৬৯১ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন দুই কোটি ৮৭ লাখ ৬ হাজার ৪৭৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৯ হাজার ৮৭৫ জনের।

আক্রান্তে দ্বিতীয় ও মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন এক কোটি ৯৯ লাখ এক হাজার ৯১ জন এবং মারা গেছেন এক লাখ ৫৬ হাজার ৩৩৯ জন।

আক্রান্তে তৃতীয় এবং মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় এক কোটি এক লাখ ৩৯ হাজার ১৪৮ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪৬ হাজার ৬ জনের।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

Related News

Add Comment