কুয়েতে ভ্যাকসিনের ব্যপারে কিছু গুরত্বপূর্ন তথ্য

ভ্যাকসিনের ব্যপারে কিছু গুরত্বপূর্ন তথ্য…#কুয়েত

১. ভ্যাকসিন গ্রহন করতে হলে অবশ্যই রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে।

২. রেজিষ্ট্রেশন করার পর 𝐌𝐎𝐇 থেকে আশা মেসেজ / এপোয়েন্টমেন্ট দেখাতে হবে ভ্যাকসিনেসন কেন্দ্রের প্রবেশদ্বারে।

৩. রেজিষ্ট্রেশন/এপোয়েন্টমেন্ট ছাড়া শেখ জাবের ব্রিজের ঐখানে প্রবেশ করতে দিবেনা ভ্যাকসিন গ্রহনের জন্য।

৪. শেখ জাবের ব্রিজের পাশে কুয়তি নাগরিক সহ প্রবাসীদের ২য় ডোজের ভ্যাকসিন প্রদান করা হচ্ছে। (সূত্র মতে)

৫. যাদের এপোয়েন্টমেন্ট আছে এবং শেখ জাবের বিজ্রের ঐখানে গিয়ে ভ্যাকসিন দিবেন ভাবতেছেন আপনি একা গাড়ি ড্রাইভ করে গেলে সেখানে আপনাকে ভ্যাকসিন দিবে না। সাথে আরেক জন থাকতে হবে। সে গাড়ি চালাবে।

৬. ভ্যাকসিনের জন্য আবেদন করেছেন এখনো মেসেজ আসেনি!!! সমস্যা নেই – যে পর্যন্ত মেসেজ না আসে সে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

৭. টাকা বা অর্থের বিনিময়ে ভ্যাকসিন গ্রহন থেকে বিরত থাকুন। তা না হলে সমস্যা হতে পারে।

৮. ভ্যাকসিনেসন সেন্টারে আপনার মেসেজ বা এপোয়েন্টমেন্ট যে পর্যন্ত তাদের কম্পিউটারে ‘শো’ না করবে সে পর্যন্ত আপনাকে ভ্যাকসিন দিবেনা।

৯. ভ্যাকসিন নেওয়ার পর হয়তো শারীর একটু জ্বর বা ব্যাথা অনুভব হতে পারে তার জন্য নিজের প্রতি যত্ন নিয়েন।

১০. যেহেতু কুয়েত সরকার বলছে ভ্যাকসিন ব্যাতিত আকামা নবায়ন করা হবে না সেপ্টেম্বর মাসের পর থেকে সেহেতু ভ্যাকসিন গ্রহন করা বাধ্যতামূলক।তবে প্রশ্ন-আমিতো রেজিষ্ট্রেশন করে রেখিছি ১/২/৩/৪+ মাস, এখনো কোনো মেসেজ আসেনি তাহলে করনীয় কি??★উ: আপাতত কিছু করনীয় নেই, অপেক্ষা করতে হবে যে পর্যন্ত রেজিষ্ট্রেশন করার পর মেসেজ না আসে।

১১. ভ্যাকসিন গ্রহন ছাড়া বাংলাদেশে যেতে পারবেন, তবে বাংলাদেশ থেকে আসতে সমস্যা হবে যদি কুয়েত সরকার অনুমোদিত ভ্যাকসিন গ্রহন না করে থাকেন।

১২. ফাইজার ভ্যাকসিনের ১ম ডোজ গ্রহনের পর ২য় ডোজ আসে ২১ দিন পর।

১৩. অক্সফোর্ড ভ্যাকসিনের ১ম ডোজ গ্রহনের পর ২য় ডোজ আসে ৩ মাস পর।

১৪. কুয়েতে প্রবাসী ও নাগরিকদের ভ্যাকসিন প্রদানের গতি বাড়ানো হয়েছে। আশাবাদী এতে সকলেই দ্রুত ভ্যাকসিন গ্রহন করতে পারবে। কারন বিভিন্ন কোম্পানি, Kfm food, মসজিদ, হোটেল, বাইক রাইডার, ড্রাইভার, সেলুস এবং পার্লার, শপিংমল এবং এয়ারওয়েজে কর্মরত পাইলট ও হোস্টসদেরসহ অনেককেই ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে গেছে। সেহেতু টেনশন করার দরকার নাই ভ্যাকিসিন প্রদান করা হবে।

১৫. ভ্যাকনিস প্রদান করার জন্য অলরেডি বেশ কিছু মোবাইল ভ্যাকসিনেসন ক্যাম্পিং চালু করা হয়েছে এবং মার্কাজ মিশরেফ ও জাবের ব্রিজের পাশে তা চলমান ভ্যাকসিন প্রদানে।

🔴 রেজিষ্ট্রেশনে ভুল করনীয় কি⁉️

…১. ভ্যাকসিনের জন্য রেজিষ্ট্রেশন লিংকে প্রবেশ করার পর হাতের ডান দিকে লাল মার্ক করা লিখা আছে {𝐂𝐥𝐢𝐜𝐤 𝐭𝐨 𝐦𝐨𝐝𝐢𝐟𝐲}। ক্লিকট টু মডিফাইতে ক্লিক করার পর আপনার বতাকার নাম্বার, পাসপোর্ট নাম্বার, বতাকার পিছনে থাকা সিরিয়াল নাম্বার দিলে চলবে আসবে আপনার সকল ডিটেইলস এবং সেখানে যা পরিবর্তন করার তা করে নিয়ে 𝐬𝐮𝐛𝐦𝐢𝐭 ক্লিক করবেন। ব্যাস হয়ে গেলো।

তবে অনেকে দ্রুত ভ্যাকসিন গ্রহনের জন্য – চাকরির খাতে বা মিনিষ্ট্রি রিলেটেড অপশনে ক্লিক করেছে যাকে বলে অতি চালাক কিন্তু এখন পর্যন্ত তারাও ভ্যাকসিন গ্রহন করতে পারেনি, অনেকে বলেছে ৪ থেকে ৫+ মাস হবে।

নোট: ধারনা বা শুনেছি যেহেতু বয়স হিসাবে ভ্যাকসিন প্রদান করা হচ্ছে সেহেতু অপেক্ষা কারটাই ভালো মনে করি। কেনোনা!!! আমরা তো রেজিষ্ট্রেশন করে রেখেছি 𝐌𝐎𝐇 থেকে মেসেজ না আসলে আমরা কি করবো।

✍লেখক: #kawsar_ahmed_bihon এডমিনিষ্ট্রি অফ Bangladeshi in kuwait.

Related News

Add Comment