নিরাপত্তার কারণে বাংলাদেশী প্রবাসীদের যে সকল ভিসা বন্ধ

বাংলা:

নিরাপত্তার কারণে বাংলাদেশী প্রবাসীদের ভিসা ২0 অথবা 18 নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

 মেজর জেনারেল তালাল মারাফি

কুয়েত সিটি, ২২ মার্চ: রেসিডেন্সি অ্যাফেয়ার্স বিভাগের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল তলাল মারফী বাংলাদেশী প্রবাসীদের বিষয়ে বলেন, বাংলাদেশি প্রবাসী বাংলাদেশীদের ভিসা নম্বর ২0 অথবা ভিসা নম্বর 18 এ নিরাপত্তার কারণে দেশে প্রবেশ করতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। বাংলাদেশী শ্রমিকরা কুয়েতে শুধুমাত্র সরকারি চুক্তির ভিত্তিতে (আকদ হুকুমা) অথবা খামার (মাযরা)
ভিসার শ্রমিক কুয়েতে আনা যেতে পারে।

উপরন্তু, মেজর জেনারেল মারাফি বলেন, কুয়েত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিত্ব করেছে, জিএসসি (আরব উপ মহাদেশের) চুক্তির একটি সংস্থার সাথে স্বাক্ষরিত হয়েছে, যার মধ্যে কোন কোন প্রবাসী বাংলাদেশীকে তাদের জিটিসিভুক্ত দেশ থেকে বহিষ্কার করার জন্য প্রবাসী কর্মীদের একটি যৌথ ডাটাবেস সম্পর্কে নির্দেশনা প্রদান করে।

তিনি এই সাধারন ক্ষমার সুবিধা গ্রহণের জন্য বাসভবনের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীদের পরামর্শ দেন কারণ,খুব তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যাচ্ছে সাধারন ক্ষমা, এই সাধারন ক্ষমা শেষ হবার পরেই অভিজান সারা দেশে চালু করা হবে, যাতে তারা রেসিডেন্সি আইনের আসামী দের গ্রেফতার করতে পারে।

মেজর জেনারেল মারাফি জোর দিয়ে বলেন যে সাধারন ক্ষমার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর গ্রেফতার হওয়া কোন রেসিডেন্সি আইন ভঙ্গকারীকে বহিষ্কার করা হবে এবং কোন আরব দেশে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

মেজর জেনারেল মারাফি প্রকাশ করেছেন যে, বেশ কয়েকটি দেশে নারী নাগরিকদের কুয়েত থেকে ভিসা নম্বর ২0 অথবা ভিসা নম্বর 18 এ ব্যক্তিগত অঞ্চল হিসাবে কাজ করার জন্য কুয়েত আসার নিষিদ্ধ করা হয়েছে,
এই দেশগুলি কেনিয়া, উগান্ডা, নাইজেরিয়া , টোগো, ইথিওপিয়া, সেনেগাল, মালাউই, ভুটান, চাদ, সিয়েরা লিয়ন, নাইজার, তানজানিয়া, গিনি, ঘানা, জিম্বাবুয়ে, মাদাগাস্কার এবং ইন্দোনেশিয়া।

সুত্র: আরব টাইমস কুয়েত
পোস্ট শেয়ার করে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন।

Related News

Add Comment