শ্রমিকদের পাওনা বেতন দিতে কোম্পানিদের বাধ্য করতে হবে,কুয়েতি এমপি আল কান্ডারী !!

কুয়েতের জাতীয় ন্যাশনাল এসেম্বলির এমপি,  আবদুল কারিম আল-কান্ডারী বলেছেন, বিগত চার মাস ধরে স্যালারি না পাওয়া শ্রমিকদের দৃশ্য অর্থ পাচার ও মানব পাচারের মামলার চেয়ে কুয়েতের পক্ষে কম আপত্তিকর নয়।

আজ  কিছুক্ষণ আগে কুয়েতের ইংরেজি দৈনিক,  আরবটাইমসে প্রকাশিত আর্টিকেল বরাতে জানা যায়, এমপি আল-ওতাইবি প্রবাসী শ্রমিকদের আবাসিক অনুমোদনের বিষয়ে সরকারের চুক্তির আওতায় সামাজিক বিষয়ক মন্ত্রী এবং অর্থনৈতিক বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মরিয়ম আল-আকিলের কাছে প্রশ্ন প্রেরণ করেছেন।

তিনি ১০০ টিরও বেশি কোম্পানি ও মালিকদের নাম জমা দিয়েছেন, যাদের বিরুদ্ধে প্রবাসী শ্রমিকদের অজস্র  অভিযোগ রয়েছে ।

অন্যদিকে, এমপি  আল-হুমাইদি আল-সুবাই প্রস্তাবনা  করেছেন যে, স্যোশাল এফেয়ার্স  মন্ত্রনালয়কে এক মাসের মধ্যে ভিসার ব্যবসায়ের বিস্তারিত  জাতীয় সংসদে জমা দিতে হবে।

তিনি বলেছিলেন যে জনশক্তি কর্তৃপক্ষের (পিএএম) সরকারী অথরিটি কর্মকর্তা  আছেন,  যারা চাহিদামতো জনবলের প্রয়োজনের অতিরিক্ত  সংখ্যক শ্রমিককে অনুমোদনের মাধ্যমে ভিসা ট্রেডিং এর অপরাধের সাথে জড়িত কিনা, রিপোর্টে অবশ্যই নথিভূক্ত করতে হবে!

Related News

Add Comment