১৫ লাখ অভিবাসীকে ছাড়তে হতে পারে কুয়েত!

কুয়েত সিটি : করনা মানবসভ্যতাকে আর কত ভাবে তছনছ করে, তা শুধুমাত্র সৃষ্টিকর্তাই ভাল জানেন! এবার বাংলাদেশের জায়ান্ট দৈনিক মানবজমিনে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা গেছে! মানবজমিন তাদের প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে, এই বছরের শেষ নাগাদ কুয়েত ছাড়তে পারে ১৫ লাখ শ্রমিক, কারণ অতিরিক্ত অভিবাসীদের চাপ কুয়েতের জনসংখ্যাতাত্ত্বিক ভারসাম্য নষ্ট করেছে, অপরদিকে করনা মহামারীর কারনে অর্থনৈতিক মন্দায় থাকা অনেক কোম্পানি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, কিছু কিছু কোম্পানি শ্রমিক কমিয়ে দিচ্ছে!

এই কারনে বিপুলসংখ্যক অভিবাসী কুয়েত ছাড়তে পারে বলে সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে! এছাড়া ও কুয়েতের অতিরিক্ত অভিবাসী কমাতে নতুন আইন করা হয়েছে, যাতে করে কুয়েতের কুয়েতি নাগরিক ও অভিবাসীদের সংখ্যায় ভারসাম্য বজায় থাকে! আবার, অন্যান্য আরব দেশের মত ” স্বদেশীকরন ” বা কুয়েতিকরনের ধাক্কা ও পাচ্ছে কুয়েতের শ্রমবাজার! কেনন কুয়েত সরকার বেশ আগে থেকেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, সরকারি ও বেসরকারি খাতগুলোতে কুয়েতি নাগরিকদের অংশগ্রহণ বাড়াতে ! ফলশ্রুতিতে চাপ বাড়বে শ্রমবাজারে ও অভিবাসীদের বেকারত্ব বাড়বে!

আরব নিউজের অনলাইন সংস্করণের উদ্ধৃতি দিয়ে মানবজমিন আরো জানায়, গত ১৬ই মার্চ থেকে ১৯ শে জুলাই পর্যন্ত মাত্র ১১৬ দিনে কুয়েত ত্যাগ করেছেন কমপক্ষে এক লাখ ৫৮ হাজার বিদেশি শ্রমিক! করনার কারনে কর্মহীন হয়ে যাওয়া ও নিজেদের জীবিকা নির্বাহ হিমশিম খাওয়ায় এই শ্রমিকরা কুয়েত ছাড়েন!

শ্রমিক কমানোর এই আইনে সবচাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবেন মিশর ও ভারতীয় অভিবাসীরা বলে ধারণা করা হচ্ছে! আবাসন ও অভিবাসী বিষয়ক আইনটি বিবেচনায় আছে, নভেম্বরে কুয়েতের পার্লামেন্ট নির্বাচন, এর আগেই কুয়েত এই বিষয়ে সিদ্ধান্তে পৌঁছতে চাই!

Related News

Add Comment