গতকাল সংসদে বিপুল সংখ্যক প্রবাসীদের সংখ্যা কমাতে সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে কুয়েতি এমপিরা

কুয়েত: গতকাল সংসদে বিপুল সংখ্যক প্রবাসীদের সংখ্যা কমাতে সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে কুয়েতি এমপিরা।

সোমবার (১১ মার্চ) দেশটির সংসদে এমন দাবী তুলে বলে খবর প্রকাশ করেছে ইংরেজি দৈনিক কুয়েত টাইমস।

কুয়েতি সাংসদ খলিল আল-সালেহ সংসদে প্রস্তাব পেশ করে বলেন,কুয়েতি জনসংখ্যার চেয়ে দিগুন বিদেশী নাগরিককে অর্ধেকে নামিয়ে আনার আহবান জানাচ্ছি।

কুয়েতি নাগরিকদের চাকুরী দেওয়া সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান মিঃ সালেহ বলেন, বিপুল সংখ্যক বিদেশী নাগরিকের কারণে রাস্তায় জানজট, অফিস সমূহে সেবাদান বিগ্নিত, পরিবেশ দূষণ হচ্ছে।

সালেহ বলেন, জনসংখ্যা কাঠামোর জন্য উচ্চতর কমিটি অবশ্যই বিদেশী শ্রমিকের সংখ্যা হ্রাস করার ক্ষেত্রে আরও কার্যকর ভূমিকা পালন করবে।

এমপি খালেদ আল ওতাইবি বলেন, কুয়েতের দৈনন্দিন জীবনের মন্দা বৃদ্ধির জন্য বিপুলসংখ্যক প্রবাসীদের উপস্থিতি দায়ী, কারণ তাদের “জনসংখ্যা বৃদ্ধির পরে বিদেশীদের সংখ্যা বেড়ে যায়, এবং বর্তমানে তারা জনসংখ্যার দুই-তৃতীয়াংশেরও বেশি, যা উন্নয়নের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক ।

মিঃ ওতাইবি বলেন, “কুয়েতে থাকার জন্য প্রবাসীরা উৎসাহিত হয় এবং কোন পরিস্থিতিতেই তারা চলে যেতে চায় না।

সংসদীয় মানবাধিকার কমিটির প্রধান মোঃ আদেল আল-দমখি বলেন, জনসংখ্যাবিহীন ভারসাম্য মোকাবেলা করার প্রথম পদক্ষেপটি হচ্ছে মানবপাচারের বিরুদ্ধে লড়াই করা।

মিঃ আদেল দমখি বলেন,মানব পাচার বা ভিসা ব্যবসার বিরুদ্ধে বিশেষ আইন রয়েছে, তবে এটি বাস্তবায়িত হচ্ছে না।

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দোষী ব্যক্তিদের শাস্তি দেওয়ার জন্য আইনটি সক্রিয় করা উচিত।

ইসলামিস্ট সাংসদ মিঃ দমখি যোগ করেন, বিভিন্ন দেশের জন্য কোটা পদ্ধতি এবং শতাংশ প্রয়োগ করতে হবে, যাতে কোনও একক সম্প্রদায় বাকিদের উপর প্রভাব বিস্তার করতে না পারে।

কেবলমাত্র অত্যন্ত দক্ষ শ্রমিক নিয়োগ করতে হবে।

দেশে প্রবাসীদের প্রবাহ বন্ধ করতে পদক্ষেপ না নেওয়ার জন্য সরকারের সমালোচনা করেন ।

উল্লেখ্য, কুয়েতে সবচেয়ে বেশী শ্রমিক প্রেরণের শীর্ষে রয়েছেন ভারত ও মিশর।

Related News

Add Comment